~ শ্মশান বনধু

~ জ্যোতির্ময় ভট্টাচার্য শিক্ষক

~ তারিখ 23rd May, 2017


গোবিন্দপুরে শ্মশানে ইলেকট্রিক চুল্লি হয়েছে ।ইলেকট্রিক চুল্লি হবার পর এই প্রথম মড়া পোড়াতে এল বলরামদা ।বলরামদার জেঠতুতো ভাই মারা গেছে ।
বডি চুল্লিতে ঢুকিয়ে বলরামদার সঙ্গে গিয়ে নদীর ধারে বসলাম ।একটু বাদে পানু এসে বলল হয়ে গেছে ।শুনে বলরামদা বলল দুঃশালা ।
ফেরার সময় আমি বললাম সব শেষ হয়ে গেছে শুনে শালা বললে কেন ?
বলরামদা বলল বলবনা, আগে তিন ঘণ্টা ধরে বডি পুড়ত ।
নদীর ধারে বসলে ধীরে ধীরে কত কথা মনে হত ।
আর এখন ত দেখতে না দেখতেই সব শেষ ।
আমি অবাক হয়ে বলরামদার মুখের দিকে তাকিয়ে রইলাম ।
কত বিচিত্র মানুষ আছে এ দুনিয়ায় ।



সার্চ করুন বাঙালি কবিদের কবিতা

  
spacebar অথবা tab টিপুন বাংলায় রূপান্তর করতে

  
পোস্ট তারিখ